Image
 
Gifts: Misti | Mahabhoj | Cake
Movie: Bengali | Hindi | Satyajit
Music: Rabindra | Najrul | Adhunik
Books: Children | Pujabarshiki | Novel
নেতাজীর হোমফ্রন্ট- ৮ প্রিন্ট কর ইমেল
আর্টিকেল সূচি
নেতাজীর হোমফ্রন্ট- ৮
পাতা 2
পাতা 3
পাতা 4
পাতা 5
পাতা 6
পাতা 7

এর আগে

বি-ভির কার্যক্রম সার্থক রূপায়ণের জন্য মৌলানা ইসলামাবাদী সাহেব চট্টগ্রাম শহরে তাঁর নিজ বাড়িতে বি-ভি কর্মীদের প্রধানতম ঘাঁটি স্থাপন করতে দেন। বি-ভির ছেলেরা মুসলমান লুঙ্গি ব্যবসায়ীর ছদ্মবেশে কলকাতা-চট্টগ্রাম যাতায়াতের সুষ্ঠু ব্যবস্থা গড়ে তুলল। মৌলানা সাহেবের আত্মীয় ও অনুগামী হামিদ আলি সাহেব সমুদ্র উপকূল ধরে চট্ট থেকে আকিয়াব ব্রহ্মসীমান্ত পর্যন্ত সমস্ত এলাকাই লেবার কন্ট্রাকটরের কাজ করতেন। সমস্ত স্থান জুড়েই তাঁর লেবার ক্যাম্প ছিল। ব্যবস্থা ছিল বি-ভির ছেলেরা এই লেবার ক্যাম্পগুলির সঙ্গে যুক্ত ক্ষুদ্র হোটেলে মুসলমান বয়ের ছদ্মবেশে অবস্থান করবে এবং ক্রমে এক ক্যাম্পের হোটেল থেকে পরপর অগ্রগামী ক্যাম্পের হোটেলে এগিয়ে যাবে ও ক্রমে শেষ ক্যাম্পের হোটেলে গিয়ে সুযোগমত সীমান্ত পারি দিয়ে নেতাজীর সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করে তাঁরা নির্দেশ অনুযায়ী কাজ করবে। এই ক্যাম্পগুলি পরিচালনা করতেন মৌলানা ইসলামাবাদী সাহেবের আত্মীয়রাই। যুক্ত সংগঠনের সূত্রপাত হলে বি-ভি ব্রহ্মসীমান্ত অতিক্রম করে নেতাজীর সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপনের জন্য অজিত রায়কে এবং তাকে সহায়তা করার জন্য নীরেন রায়কে মনোনীত করা হয়। অজিত রায় সীমান্ত অতিক্রম করে আজাদ হিন্দ ফৌজের সঙ্গে সংযোগ স্থাপনে সক্ষম হলেও ভারতে ফিরে এসে দলের সঙ্গে শেষ পর্যন্ত যুক্ত হতে সক্ষম হয় নাই। এ সময় অজিত রায় ও নীরেন রায়কে সহযোগিতা করছিলেন চঞ্চল মজুমদার ও কমলাঘাটের ধীরেন সাহা রায়। মহাযুদ্ধের শেষ অধ্যায়ে ভারতের অভ্যন্তরে দেশের বুদ্ধিজীবিরা ও সাধারণ মানুষ অসাম্প্রদায়িক হিন্দু-মুসলমান জাতীয়তাবিদীরা বিপ্লবীদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে সমষ্টগতভাবে লড়েছেন এ দৃশ্য সম্ভবত খুব বেশি লোকগোচরে আসে নাই। বর্হিভারতে নেতাজী সুভাষচন্দ্রের নেতৃত্বে আজাদ হিন্দ ফৌজ হিন্দু-মুসলমান-খৃষ্টান নির্বিশেষে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা ধরে পূর্বভারতের সংগ্রাম ক্ষেত্রে নেতাজীর হোমফ্রন্ট বি-ভির সঙ্গে মুসলমান বিপ্লবীরা বীর বিপ্লবী বৃদ্ধ মৌলানা মনিরুজ্জমান ইসলামাবাদী সাহেবের নেতৃত্বে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল। ভারতের স্বাধানতা সংগ্রামের ইতিহাসে এ এক উজ্জ্বল দিক্-দর্শন। ইংরেজ বিপ্লবী বৃদ্ধ মৌলানা ইসলামাবাদী সাহেবকে লাহোর দূর্গে প্রেরণ করে। মৌলানা সাহেবের অনুগামী মুর্সেদ আলি, সৈয়দ সুলতান কন্ট্রাকটার হামিদ আলি, মাষ্টার সাহেব জেলে বন্দী হলেন। কিন্তু শত চেষ্টা করেও ইংরেজের পক্ষে প্রকৃত ইচ্ছা থাকলেও এদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র মামলা দায়ের করা সম্ভব হয় নই।



 

প্রতিবেশী ওয়েবজিন