Image
 
Gifts: Misti | Mahabhoj | Cake
Movie: Bengali | Hindi | Satyajit
Music: Rabindra | Najrul | Adhunik
Books: Children | Pujabarshiki | Novel
পদা’র স্বপ্ন প্রিন্ট কর ইমেল
আর্টিকেল সূচি
পদা’র স্বপ্ন
পাতা 2

বারো বছর বয়েসে পদা দেখেছিল Gone With The Wind. রেঠ্‌ বাট্‌লারের সেই ফিসফিস করে ডায়ালগ্‌, স্কারলেট্‌ ওহ্যারা’র সেই বেদানার মত ঠোট দুটো এগিয়ে দাওয়া, আর যখন তখন দুজনে জাপ্টেজুপ্টে চুমু! দেখে কান গরম হয়ে গিয়েছিল। আর রেঠ্‌ বাট্‌লারের ওই যে সেই ডায়ালগটা: “Frankly speaking dear, I don’t give a damn!” ওফ্‌, কি ডায়ালগ্‌! প্রতি খোপে খোপে যেন পুরুষত্ব লুকিয়ে রয়েছে! তারপর থেকেই মনে হোতো কবে দেবো। বাবাকে গিয়ে বলল: বাবা, বাংলা মিডিয়ামে আর পরবো না। ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলে ভরতি করে দাও। শুনে বাবা বলল: খেপেছিস?ওসব স্কুলে ট্যাঁস’রা পড়ে। পদা দমলো না। রোজ ডায়ালগ্‌ গুলো মনে মনে আওড়াতো আর ভাবতো: ডায়ালগ্‌ একদিন আমি দেবই, সে যে ভাবেই হোক। তোমরা কেউ আটকাতে পারবে না।

একটু বড় হয়ে পদা আবিষ্কার করলো যে ব্যাপারটা আর একটু গোলমেলে। প্রথমত, একটা মেয়ে জোটাতে হবে—তবেই না ডায়ালগ্‌। দ্বিতীয়ত, মেয়েটাকে প্রেমে পরতে হবে পদার সাথে। যাকে তাকে ডায়ালগ্‌ দিলেই তো আর হোলোনা! চেহারা দেখিয়ে মেয়ে পটানো পদার অসাধ্য। সে ঠিক করল, আর কিছু না হোক, অন্তত গলার স্বরটাকে রেঠ্‌ বাট্‌লারের মত করা দরকার। বন্ধুবান্ধবদের সাথে কথা বলত কম। যখন বলত তখন ফ্যাঁসফ্যাঁসে গলায়। জিগ্যেস করলে বলত, ভয়েশটাকে হাশকি করা দরকার। তা না হলে পুরুসত্ব থাকে না!

এমনি করে কলেজ লাইফের দু বছর কেটে গেল। পদার তখনো স্কারলেট্‌ ওহ্যারা জোটেনি। সে কিছুটা ফ্রাসট্রেটেড। থার্ড ইয়ারে কলেজে এলো নন্দিতা। পদা দ্যাখে আর ভাবে: ইন্সট্যান্ট কফি’র মত ইন্সট্যান্ট স্কারলেট্‌ ওহ্যারা! ঘটনাচক্রে আলাপও হয়ে যায় নন্দিতার সাথে—দুজনেই হয়েছিল কলেজ ফেস্ট’এর ভলউন্টিয়ার। কাছাকাছি এসে পদার হৃদয়ে জাগলো প্রেম। এই বার বোধহয় সেই লং-আয়েটেড মোমেন্ট! কিন্তু তার আগে দরকার গুরুত্যপূর্ণ স্টেপ ২ সেরে ফেলা: মেয়েটাকে প্রেমে পরাতে হবে তার সাথে।



 

প্রতিবেশী ওয়েবজিন